সংবাদ শিরোনামঃ
লক্ষ্মীপুরে সরকারি ঔষধ ফার্মেসিতে! এযেন সর্ষের মধ্যে “ভুত “ লক্ষ্মীপুরে কিশোর অপরাধ প্রতিরোধে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত অবশেষে লক্ষ্মীপুরে বাল্য বিবাহ রোধে অগ্রনী ভূমিকা রাখলেন জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জোবায়েদা খানম শিমুল সাহা, বাংলাদেশ যুব ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরে গ্রামীন সড়কে ড্রামট্রাকে  মেম্বারের বালু ব্যবসা, জানতে চাইলে সাংবাদিকদের চাঁদাবাজি মামলা দেয়ার হুমকি রায়পুরে কিশোরী অপহরণ মামলায় দীপেন ও জহির গ্রেপ্তার  লক্ষ্মীপুর পৌরসভার সড়কের পাশে আবর্জনার স্তূপ, নির্গত দুর্গন্ধ ও ধোঁয়ায় দূষিত হচ্ছে পরিবেশ লক্ষ্মীপুরে শিক্ষক- শিক্ষিকার বিরুদ্ধে পরকীয়ার অভিযোগ লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়নে স্কুল শিক্ষক ও শিক্ষিকার অনৈতিক সম্পর্ক, শিক্ষিকার স্বামীর অভিযোগ লক্ষ্মীপুর ২ আসনের মানবিক এমপি নুরউদ্দিন আলিফ মীম হাসপাতালের শেয়ার হোল্ডারদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি জেলা বিএমএ ও স্বাচিপের সভাপতি ডা: জাকির হোসেন উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত
গণমাধ্যমই হচ্ছে রাষ্ট্রের ৪র্থ স্তম্ভ 

গণমাধ্যমই হচ্ছে রাষ্ট্রের ৪র্থ স্তম্ভ 

ভিবি নিউজ ডেস্কঃ

আয়না মিথ্যা বলতে জানে না। সত্য প্রকাশের জন্যই তার সৃষ্টি। মানুষের চেহারা খারাপ হলে খারাপ বলে, ভালো হলে ভালো। আয়নাতে কারো চেহারা যদি খারাপ দেখায়, আয়না ভেঙে ফেললে তার সমাধান হবে কি?

সমাজের আয়না, জাতির বিবেক খ্যাত গণমাধ্যমের উৎপত্তি গণমানুষের সার্বিক কল্যাণে। তাদের সুখ-দুঃখ, হতাশা-দুর্দশা, অপরাধ, অনাচার, দুর্নীতি প্রভৃতি বিষয় তুলে ধরাই গণমাধ্যমের উদ্দেশ্য। শুধু তাই নয়, সমাজের নেতিবাচক দিকগুলোর সংশোধনের পথ বাতলে দিয়ে নৈতিক ও মানবিক সমাজ গঠনের দিকদর্শনও গণমাধ্যম। তার জন্য চাই গণমাধ্যমের স্বাধীনতা। স্বাধীন গণমাধ্যমই পারে লক্ষ্য পূরণে কার্যকর ভূমিকা রাখতে। গণমাধ্যমের উদ্ভাবনশক্তি নিয়ে গত ২১ জানুয়ারি এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে বক্তারা গণমাধ্যমের কিছু পরিবর্তনের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে কথা বলেন। সেখানে উঠে আসে সমাজের আয়না ভেঙে ফেলার মতো কিছু বিষয়। অনুষ্ঠানে একাধিক সম্পাদকবৃন্দ বলেছেন, ‘সরকারের নিয়ন্ত্রণমূলক আইন গণমাধ্যমের বিকাশে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে।’ কেউ কেউ বলেছেন, ‘খবর প্রকাশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন এবং মানহানির মামলা বাধা তৈরি করছে।’ সমাজের নানা সংবাদ প্রকাশে বাধা থাকলে ঘটনা কিন্তু থেমে থাকার নয়। ঘটনা এবং নানা অঘটন নিয়ত ঘটেই চলেছে। ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারের নির্বাহী সম্পাদক বলেছেন আরো গুরুতর কথা। তিনি বলেছেন, ‘প্রচারণা ও মিথ্যা খবরের পেছনে প্রচুর বিনিয়োগ করা হচ্ছে।’ যা কি-না আয়না ভেঙে ফেলার শামিল।