সংবাদ শিরোনামঃ
উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে এডভোকেট নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত অনিয়মে চাকরিচ্যুত হবেন কর্মকর্তারা, ফেক্ট- উপজেলা পরিষদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ পুরস্কার নিয়ে বির্তক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লক্ষ্মীপুর -১ আসনের ড, আনোয়ার খান এম পির বড় ভাই আখতার খান রায়পুর উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় অধ্যক্ষ মামুনের চেয়ারম্যান হওয়া প্রয়োজন লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক এমপি ও মন্ত্রী হতে নয় বরং মানুষের পাশে দাঁড়াতে আ.লীগ করি, সুজিত রায় নন্দী
হাঁচি-কাশি-মুখের থুথুর ড্রপলেট এর মাধ্যমেই ছড়ায় করোনা -ভিবি নিউজ

হাঁচি-কাশি-মুখের থুথুর ড্রপলেট এর মাধ্যমেই ছড়ায় করোনা -ভিবি নিউজ

করোনা গ্রুপের কোভিড-১৯ ভাইরাস রোধে নানা সতর্কতামূলক প্রচার চলছে। এই করোনা ভাইরাস ছড়ানোর অন্যতম মাধ্যম রোগাক্রান্ত মানুষের হাঁচি-কাশি-মুখের থুথুর ড্রপলেট বায়ুতে ঘুরে বেড়ায়।

ন্যাশভিল-এর ভ্যান্ডারবিল্ট বিশ্ববিদ্যালয় মেডিক্যাল সেন্টারের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ উইলিয়াম শ্যাফনারের মতে, রোগাক্রান্ত মানুষের হাঁচি-কাশির ড্রপলেট বায়ুতে ঘুরে বেড়ায়। রোগীর কাছাকাছি থাকা সুস্থ মানুষের নাক, মুখ ও চোখের মাধ্যমে তার শরীরে প্রবেশ করে এই ড্রপলেট। শরীরে এসেই ভাইরাসের অণুগুলো দ্রুত নাসাপথের পিছন দিকে বা গলার ভিতরের দিকে মিউকাস মেমব্রেনের ভিতরে গিয়ে সেখানকার কোষে হানা দেয়।

পবিত্র রমজানে রোজাদার ব্যক্তিরা নিজের অজান্তে নিজ মুখের থুথু যেখানে সেখানে ফেলছে। এদের মধ্যে যদি কাহারো করোনাভাইরাসের ড্রপলেট থাকে তবে আরকি তার থুথুর মাধ্যমে পুরো এলাকা প্রাণঘাতী ভাইরাস ছড়িয়ে দেবে আর সুস্থ ব্যক্তির কাছে যাওয়ার মাধ্যমে তার নাক, মুখ ও চোখের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে আক্রান্তের সংখ্যা জ্যামিতিক হারে বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

যদিও ইসলাম ধর্মীয় চিন্তাবিদ জানিয়েছে, নিজ মুখের থুথু, কফ  ইত্যাদি গলাধঃকরণ করায় রোজার কোন ক্ষতি হয় না। তবে রাস্তায় যেখানে সেখানে কেন ফেলবে মুখের থুথু?

অনিচ্ছাকৃত বমি হলে (এমনকি মুখ ভরে হলেও) রোজা ভাঙ্গবে না। তেমনি বমি মুখে এসে নিজে নিজেই ভেতরে চলে গেলেও রোজা ভাঙ্গবে না। বলা হয়েছে, অনিচ্ছাকৃতভাবে কোনো ব্যক্তির বমি হলে তার রোজা কাজা করতে হবে না। -জামে তিরমিজি: ১/১৫৩, হাদিস : ৭২০

আমাদের আরেকটি খুবই বদ অভ্যাস হলো মুখের থুথু দিয়ে টাকা গোনা, বাজারের দোকানদার পলিথিন কিংবা কোন ব্যাগ খুলতেই মুখের থুথু হাতে লাগিয়ে কিংব মুখের ফুঁ দিয়ে খুলছে। এর ফলে ঐ ব্যক্তির শরীরে ভাইরাস থাকলে টাকা কিংবা ব্যাগের মাধ্যমে গ্রাহকের হাতে চলে গেলো। ঐ হাত তার নাকে মুখে কিংবা চোখে দিলেই ভিতরে চলে যাবে করোনাভাইরাস।

ভাইরাস সংক্রমণের আরেকটি অন্যতম মাধ্যম ছিলো হ্যাণ্ডশেক। এটা করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শুরু হওয়ার সাথে সাথেই অনেকটা কমে গেছে।

আনন্দম্‌ ইনস্টিটিউট অভ যোগ এণ্ড যৌগিক হস্‌পিটাল এর পরিচালক যোগী পিকেবি প্রকাশ (প্রমিথিয়াস চৌধুরী) বলেন, আমাদের দেহে রোগ প্রবেশের প্রধান দু’টি দরজা হলো নাক ও মুখ। আমরা মুখ ব্যবহার করি শুধু খাওয়া ও কথা বলার সময় তাই এই পথে রোগ জীবাণু প্রবেশের সুযোগ একটু কম। নাক হচ্ছে অবধারিত দ্বার, বেঁচে থাকতে হলে ইচ্ছে করেও নাক বন্ধ রাখতে পারিনা। এজন্য শতকরা প্রায় ৯০ ভাগ রোগই নাক দিয়ে দেহের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে;বিশেষ করে ভাইরাস ঘটিত।

যোগী পিকেবি প্রকাশ আরও বলেন,  আমরা সচেতন হই মুখের থুথু যেখানে সেখানে না ফেলি, টাকা কিংবা কিছু খুলতে মুখের থুথু ব্যবহার না করি, কোন প্যাকেট/পলিথিন খুলতে মুখের ফুঁ না দেই। কোন কিছু ধরে হাত সাবান দিয়ে না ধুয়ে নাকে মুখে চোখে হাত না দেই।  এই বিষয়গুলো থেকে নিজে সচেতন হই এবং অন্যকে পরিবর্তনের চেষ্টা করি তবেই পরিবেশ হবে জীবাণুমুক্ত।