সংবাদ শিরোনামঃ
উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে এডভোকেট নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত অনিয়মে চাকরিচ্যুত হবেন কর্মকর্তারা, ফেক্ট- উপজেলা পরিষদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ পুরস্কার নিয়ে বির্তক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লক্ষ্মীপুর -১ আসনের ড, আনোয়ার খান এম পির বড় ভাই আখতার খান রায়পুর উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় অধ্যক্ষ মামুনের চেয়ারম্যান হওয়া প্রয়োজন লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক এমপি ও মন্ত্রী হতে নয় বরং মানুষের পাশে দাঁড়াতে আ.লীগ করি, সুজিত রায় নন্দী
সুষ্ঠ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে চাই, লক্ষ্মীপুরে ” ইসি আনিছুর রহমান”

সুষ্ঠ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে চাই, লক্ষ্মীপুরে ” ইসি আনিছুর রহমান”

ভিবি নিউজ ডেস্ক : লক্ষ্মীপুরে ১৯ ডিসেম্বর
নির্বাচন কমিশনার মো. আনিছুর রহমান বলেছেন, আমরা সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে চাই। কাউকে খুশি করা বা অখুশি করার জন্য নির্বাচন করতে চাই না। ভোটের জন্য যে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরী করা দরকার, সেটা আমরা করতেছি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যেখানে যেটা দরকার, সেখানে সেটা করবে।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় লক্ষ্মীপুর টাউন হল মিলনায়তনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন-২০২৪ উপলক্ষ্যে লক্ষ্মীপুর জেলার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা এবং ব্যক্তিবর্গের সাথে বিশেষ আইন-শৃঙ্খলা ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
আচরণবিধি না মানলে প্রার্থীতা বাতিলের হুশিয়ারী দিয়ে নির্বাচন কমিশনার বলেন, আচরণ বিধি যদি প্রত্যেক প্রার্থী প্রতিপালন করে, তাহলে অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটবে না৷ এ নির্বাচন শুধু আমাদের চোখে আমরা দেখছি না, বিশ্ববাসীও দেখছে। এ নির্বাচনের ওপর অনেক কিছু নির্ভর করে। আমাদের দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য আমাদের অর্থনীতি নির্ভর করে। আচরণবিধি না মানলে আমরা প্রার্থীতা বাতিল করে দেব। প্রয়োজনে ভোট বন্ধ করে পুন:নির্বাচন করবো। তবুও সুষ্ঠু ভোট হতে হবে। যতবার দরকার হবে, ততবার করবো।
নির্বাচন কমিশনার সকল প্রার্থীকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হলে আন্তজার্তিক ভাবে গ্রহণযোগ্যতা হারাবে। এতে দেশ শ্যানশনের কবলে পড়বে। দেশের অর্থনীতি হুমকির মুখে পড়বে। যা কারো জন্য মঙ্গলজনক নয়। তাই নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন,লক্ষ্মীপুর জেলার রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ তারেক বিন রশিদ, কুমিল্লা আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ফরহাদ মিয়া ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শফিকুল ইসলামসহ লক্ষ্মীপুরের ৪ টি আসনের বিভিন্ন প্রার্থীগণ এবং জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।