সংবাদ শিরোনামঃ
লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক এমপি ও মন্ত্রী হতে নয় বরং মানুষের পাশে দাঁড়াতে আ.লীগ করি, সুজিত রায় নন্দী বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য, নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী পদক্ষেপ চাই বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য, নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী পদক্ষেপ চাই লক্ষ্মীপুরে বিনা তদবিরে পুলিশে চাকরি পেল ৪৪ নারী-পুরুষ দুস্থ মানবতার সেবায় এগিয়ে আসা “সমিতি ওমান ” কর্তৃক চট্টগ্রামে ইফতার সামগ্রী বিতরণ দলিল যার, জমি তার- নিশ্চিতে আইন পাস লক্ষ্মীপুরে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে পবিত্র কুমার  লক্ষ্মীপুর সংরক্ষিত আসনের মহিলা সাংসদ আশ্রাফুন নেসা পারুল রায়পুরে খেজুর রস চুরির প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধকে মারধরের অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে আলোচিত রীয়া ধর্ষণের বিষয়ে আদালতে মামলা
লক্ষ্মীপুর পৌর নির্বাচনে নৌকা পেলেন মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভুঁইয়া ? 

লক্ষ্মীপুর পৌর নির্বাচনে নৌকা পেলেন মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভুঁইয়া ? 

ভি বি রায় চৌধুরী -লক্ষ্মীপুর পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থী হিসেবে মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভুঁইয়ার নাম ঘোষনা করা হয়েছে বলে জানা গেছে। ২১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাত ন’টার দিকে লক্ষ্মীপুর জেলায় বসবাসকারী দায়িত্বশীল একাধিক ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক এ বিষয়ে নিজ নিজ আইডি দিয়ে পোস্ট দিতে থাকেন। মূহুর্তের মধ্যেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। এতে নৌকা প্রতিকের অন্য প্রতিযোগীদের ভিতরে বদরুল আলম শাম্মী, সাইফুল ইসলাম পলাশ ও ফরিদা ইয়াসমিন লিকা সদ্য ঘোষিত আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকার মেয়র প্রার্থী মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভুঁইয়াকে ফেসবুকের মাধ্যমে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।
এর আগে বিকাল ৪টায় গণভবনে দলের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এতে লক্ষ্মীপুর পৌর মেয়র পদে নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভুঁইয়ার নাম ঘোষনা করা হয়েছে বলে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন তবে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের কাছে এটির সত্যতা জানতে চাইলে অন্যদের মত তিনিও বিষয়টি শুনছেন বলে জানান।

জানা যায়, লক্ষ্মীপুর পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়ন লাভের প্রতিযোগিতায় ছিলেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের ১২ জন নেতা। এদের মধ্যে তৃণমূলমূল থেকে কেন্দ্রে পাঠানো তালিকায় মাসুম ভুঁইয়ার নাম এক নম্বরে ছিলো বলে জানা গেছে। লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক (১৯৭৭-২০০৩) কোষাধ্যক্ষ মরহুম কামাল উদ্দিন ভুঁইয়ার সন্তান মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভুঁইয়া ১৯৮৯ সনে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে আওয়ামী রাজনীতিতে নিজেকে প্রথম তুলে ধরেন। পরে লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি হন। পরবর্তীতে লক্ষ্মীপুর পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও ২০০৫ সন থেকে বর্তমান পর্যন্ত জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে চলছেন।
লক্ষ্মীপুরের ত্যাগী আওয়ামী পরিবারের সন্তান মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভুঁইয়ার বড় মামা বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আ.ন.ম. ফজলুল করিম জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও আমৃত্যু সহ সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তার চাচাতো ভাই জাকির হোসেন ভুঁইয়া আজাদ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন, চাচাতো ভাই দেলোয়ার হোসেন ভুঁইয়া নিশাদ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন, আরেক চাচাতো ভাই এডভোকেট রাসেল মাহামুদ ভুঁইয়া মান্না বর্তমানে জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন।
লক্ষ্মীপুর পৌরসভার আসন্ন নির্বাচনে সদ্য ঘোষিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দলীয় নৌকার প্রার্থী মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভুঁইয়া গত দেড় বছরে পৌর এলাকার ১৫ টি ওয়ার্ডে করোনাভাইরাস জনিত কারণে চার হাজারের বেশি কর্মহীন মানুষকে নানানভাবে সহযোগিতা করেন এছাড়া বহু বছর ধরে তিনি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত থেকে সাধারণ মানুষের কল্যাণে সমাজসেবামূলক কার্যক্রমের অংশ নিয়ে চলেছেন।

আরো জানা গেছে, গত ১৪ অক্টোবর নির্বাচনের তফসিল ঘোষনা দেয়ার পরে ১৬ অক্টোবর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়। এতে ২০ অক্টোবর বুধবার বেলা ১২টার পর থেকে নেতাকর্মীদের বহর নিয়ে একে একে মেয়র পদে ফরম জমা দিয়েছেন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা ১২ নেতা। তারা হলেন- সাবেক জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান পৌর মেয়র আবু তাহের, সাবেক সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম বদরুল আলম শাম্মী, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আবদুল মতলব, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন লিকা, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বেলায়েত হোসেন বেলাল, জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক সৈয়দ সাইফুল হাসান পলাশ, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মনিরুজ্জামান পাটওয়ারী, পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন বাবর, সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ও জেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক মামুনুর রশীদ।

১৯৭৬ সালের ১ সেপ্টেম্বর লক্ষ্মীপুর পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরে বর্তমানে প্রথম শ্রেনির এ পৌরসভায় আগামী ২৮ নভেম্বর মেয়র ও কাউন্সিল পদে আবারও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আসছে ২ নভেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন, মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই ৪ নভেম্বর এবং ১১ নভেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ।