সংবাদ শিরোনামঃ
আলিফ মীম হাসপাতালের শেয়ার হোল্ডারদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি জেলা বিএমএ ও স্বাচিপের সভাপতি ডা: জাকির হোসেন উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে এডভোকেট নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত অনিয়মে চাকরিচ্যুত হবেন কর্মকর্তারা, ফেক্ট- উপজেলা পরিষদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ পুরস্কার নিয়ে বির্তক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লক্ষ্মীপুর -১ আসনের ড, আনোয়ার খান এম পির বড় ভাই আখতার খান রায়পুর উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় অধ্যক্ষ মামুনের চেয়ারম্যান হওয়া প্রয়োজন লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক
লক্ষ্মীপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাজাহানকে জেলা আ’লীগ সভাপতি হিসেবে দেখতে চায় তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা

লক্ষ্মীপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাজাহানকে জেলা আ’লীগ সভাপতি হিসেবে দেখতে চায় তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা

ভি বি রায় চৌধুরী –প্রায় আট বছর পর লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে ২২ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এতে সভাপতি পদে বর্তমান জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহানকে সমর্থন জানিয়েছেন দলের সকল অঙ্গ সংঘঠনের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী। এ উপলক্ষে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছা সেবকলীগ, শ্রমিকলীগ, কৃষকলীগ, মহিলালীগসহ দলের নেতাকর্মীরা নিজ নিজ ফেসবুক ওয়ালে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহানকে দেখতে চান সম্বলিত নানান ধরনের ব্যানার, ফেস্টুন, পোস্টর, বিলবোর্ড ও গেইট/তোরণ বানিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের কাছে তাদের প্রিয় নেতাকে তুলে ধরার চেষ্টা করেন।
রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আকম রুহুল আমিন বলেন, আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে শাহজাহান ভাই রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের জন্য অনেক অবদান রেখেছেন, তাই আগামী ২২ নভেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই। আমার বিশ্বাস তিনি সভাপতি হলে দলের শক্তি আরো বাড়বে।
রামগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র ও রামগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল আহম্মেদ কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ নেতাদের নজরে আসার জন্য লক্ষ্মীপুর শহরের প্রাণকেন্দ্র আলিয়া মাদ্রাসার সামনে ব্যস্ততম সড়কে বড় রকমের গেইট/তোরণ বানিয়েছেন, এতে লেখা আছে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে দেখতে চাই।

কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য ও জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বদরুল আলম শ্যামল বলেন, প্রতিকূল পরিবেশ পরিস্থিতিতে লক্ষ্মীপুর ১ আসন থেকে একাধিকবার নৌকা নিয়ে জাতীয় নির্বাচন করে দলের নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখা জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জের ভোলাকোট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মোঃ আমিনুল হক টিপু বলেন, দুঃসময়ে দলের ত্যাগী নেতা ও বর্তমানে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জের লামচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল খায়ের ভূঁইয়া বলেন, ২২ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে দলের ত্যাগী নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রায়পুর উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ও লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের সদস্য মামুন বিন জাকারিয়া বলেন, লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জের লামচর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা ফয়েজউল্লাহ্ জিসান বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রামগঞ্জ আসন থেকে তিনবার নৌকা প্রতীক পাওয়া দলের দুঃসময়ের ত্যাগী নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।

লক্ষ্মীপুর জেলা মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ও রামগঞ্জ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুরাইয়া আক্তার শিউলি বলেন, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি পদে বর্তমান সহ সভাপতি ও লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইয়ের বিকল্প কেহ নাই।
যুবলীগ নেতা ও জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য সাকাওয়াত হোসেন আরিফ বলেন, বর্তমান জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহানকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি করা হলে দল আরো চাঙ্গা হবে।
রামগঞ্জের ভাদুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও দলের দুঃসময়ের ত্যাগী নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান সাহেবকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি করা হলে পূর্বের চেয়ে দল আরো শক্তিশালী হবে বলে আমার বিশ্বাস।
রামগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ও পৌর ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিল কামরুল হাসান ফয়সাল মাল বলেন, ২২ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও দলের ত্যাগী নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান সাহেবকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা বিআরডিবি’র সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান সুমন বলেন, দুঃসময়ের ত্যাগী নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মেহেদী হাসান শুভ বলেন, লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান মাসুদ বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি পদে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাই সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রার্থী।
রামগঞ্জের ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হোসেন মিঠু বলেন, রামগঞ্জ আসন থেকে একাধিক বার নৌকা প্রতিক নিয়ে দলের দুঃসময়ে জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী গণ মানুষের নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান সাহেবকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।

লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আবদুল জব্বার লাভলু বলেন, ২২ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি পদে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান সাহেব সবচেয়ে যোগ্য প্রার্থী।
রামগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক এম এ আলাউদ্দিন আঠিয়া বলেন, লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি পদে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান সাহেবের বিকল্প কেহ নাই।
রামগঞ্জ উপজেলার করপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক তছলিম হোসেন বলেন, রামগঞ্জ আসন থেকে তিনবারের নৌকা প্রতীক পাওয়া দলের দুঃসময়ের ত্যাগী নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জ পৌর যুবলীগের আহবায়ক মামুনুর রশিদ আখন্দ বলেন, আগামী ২২ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।

রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন দেওয়ান বাচ্চু বলেন, দুঃসময়ে রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগকে আগলে রাখা দলের ত্যাগী নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ সদস্য সৈকত মাহমুদ সামছু বলেন, রামগঞ্জ আসন থেকে তিনবারের নৌকা প্রতিক পাওয়া গণমানুষের নেতা ও দলের জন্য নিবেদিত কর্মি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের আহবায়ক মিলন আটিয়া বলেন, আসন্ন জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই। রামগঞ্জের লামচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুল হক টুনা বলেন, দলের দুঃসময়ের ত্যাগী নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জের ভোলাকোট ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা বশির আহম্মেদ মানিক বলেন, ২০০১ সনের ২১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত অষ্টম সংসদ ও ২০০৮ সনে ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসন থেকে প্রতিকূল পরিবেশ পরিস্থিতিতে নৌকা প্রতিকে ভোট করা এবং পরে ২০১৪ সনের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দশম সংসদ নির্বাচনেও নৌকা প্রতিক পান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান, তবে দলের বৃহত্তর স্বার্থে নেত্রীর সিদ্ধান্তে নিজ মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে তখনকার ১৪ দল মহাজোট শরীক তরিকত ফেডারেশনর প্রার্থী লায়ন এম এ আউয়ালের পক্ষে চীপ এজেন্ট হিসেবে সক্রিয় ভাবে কাজ করে দলের নেতাকর্মীদের কাছে ত্যাগী নেতা হিসেবে জনপ্রিয় বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।

রামগঞ্জের ভোলাকোট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাহার পাঠান বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দলের দুঃসময়ের ত্যাগী নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জের ভাটরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা জামাল বলেন, ২২ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই। রামগঞ্জের ইছাপুর আওয়ামী লীগের সাধারণ এস আই ফারুক বলেন, গণমানুষের নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চাই।
রামগঞ্জের কাঞ্চনপুর ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আজিজুল হক ডালিম বলেন, গণ মানুষের নেতা লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ভাইকে লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে দেখতে চাই।
রামগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি মোঃ লোটাস মোরশেদ পাটোয়ারী বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান সাহেব সবচেয়ে যোগ্য প্রার্থী।
এছাড়া জেলার রামগতি, কমলনগর, রায়পুর, রামগঞ্জ ও লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নেতাকর্মীরা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহানকে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে দেখতে চান বলে এ প্রতিবেদককে জানান।

জানা গেছে, দুইবারের জেলা পরিষদের পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দায়িত্বরত বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান জেলার রামগঞ্জ উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের নান্দিয়ারা গ্রামের মৃত হাজী ওমর আলীর সন্তান। স্নাতক (সম্মান) ডিগ্রিধারী মোঃ শাহজাহান ২০০১ সনের ২১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত অষ্টম সংসদ ও ২০০৮ সনে ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসন থেকে প্রতিকূল পরিবেশ পরিস্থিতিতে নৌকা প্রতিকে ভোট করে ব্যাপক আলোচনায় আসেন। পরে ২০১৪ সনের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দশম সংসদ নির্বাচনেও নৌকা প্রতিক পান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান, তবে দলের বৃহত্তর স্বার্থে নেত্রীর সিদ্ধান্তে নিজ মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে তখনকার ১৪ দল মহাজোট শরীক তরিকত ফেডারেশনর প্রার্থী লায়ন এম এ আউয়ালের পক্ষে চীপ এজেন্ট হিসেবে সক্রিয় ভাবে কাজ করেন তিনি। তখন দলের পক্ষে সংগঠিত থেকে দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সহায়তা করার পুরস্কার হিসেবে আঠারো সনে অনুষ্ঠিতব্য লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে উপ নির্বাচনে অনেক শক্ত প্রার্থী থাকা সত্ত্বেও নৌকা প্রতিক পান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান।
পেশায় ব্যবসায়ী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান ১৯৬৮-৭০ সনে ভাটরা উচ্চ বিদ্যালয়ে অধ্যায়ন কালীল ছাত্র লীগের রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে জড়িত হন। পর্যায় ক্রমে তিনি ১৯৭১- ১৯৭৩ পর্যন্ত রামগঞ্জ কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব পালন করার পরে ১৯৭৩- ১৯৭৫ সময়কালে রামগঞ্জ থানা ছাত্র লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ১৯৭৬ থেকে ২০০৩ সন পর্যন্ত রামগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন তিনি এবং ২০০৩ সনে সম্মেলনের মাধ্যমে রামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন এবং ২০১৭ সাল পর্যন্ত তিনি দীর্ঘ প্রায় ১৪ বছর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দায়িত্ব পালন করেন।
এছাড়াও তিনি একাধারে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি লক্ষ্মীপুর এর চেয়ারম্যান, ডল্টা ডিগ্রি কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি, ভাটরা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি, পানিয়ালা উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি, আশরকোটা আল- আমিন ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা কমিটির সভাপতি, নান্দিয়ারা জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি, রামগঞ্জ উপজেলা সমিতি ঢাকার আজীবন সদস্য, রামগঞ্জ সরকারি কলেজ প্রাক্তন ছাত্র -ছাত্রী ফাউন্ডেশন ঢাকা এর আজীবন সদস্য, রামগঞ্জ মডেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সদস্য, ১৯৯১- ২০০১ পর্যন্ত লক্ষ্মীপুর জেলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সভাপতি, ঢাকাস্থ লক্ষ্মীপুর জেলা সমিতির সহ সভাপতি ও ঢাকাস্থ রামগঞ্জ উপজেলা সমিতির দুই বারের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।
দৈনিক বাংলার মুকুল পএিকার সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শাহজাহান বক্তিগত জীবনে তিনি ৪ পুত্র সন্তানের জনক, বড় ছেলে মোঃ ইয়াসির আরাফাত যুক্তরাজ্যের লন্ডন থেকে ব্যবসা প্রশাসনে স্নাতক সম্মান ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী, মেজো ছেলে মোঃ ইমতিয়াজ আরাফাত নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবসা প্রশাসনে স্নাতক সম্মান ডিগ্রিধারী, তৃতীয় ছেলে বাংলাদেশ সেনা বাহিনীর মেজর পদে কর্মরত, ছোট ছেলে মোঃ ইমতিয়াজ আরাফাত ব্যবসা প্রশাসনে স্নাতক সম্মান ডিগ্রিধারী।