সংবাদ শিরোনামঃ
আলিফ মীম হাসপাতালের শেয়ার হোল্ডারদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি জেলা বিএমএ ও স্বাচিপের সভাপতি ডা: জাকির হোসেন উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে এডভোকেট নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত অনিয়মে চাকরিচ্যুত হবেন কর্মকর্তারা, ফেক্ট- উপজেলা পরিষদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ পুরস্কার নিয়ে বির্তক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লক্ষ্মীপুর -১ আসনের ড, আনোয়ার খান এম পির বড় ভাই আখতার খান রায়পুর উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় অধ্যক্ষ মামুনের চেয়ারম্যান হওয়া প্রয়োজন লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক
লক্ষ্মীপুরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন

লক্ষ্মীপুরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন

বিশেষ প্রতিনিধি-লক্ষ্মীপুরে প্রশাসনের অবহেলায় বালু দস্যুরা দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। প্রভাবশালী সকলকে ম্যানেজ করে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করার খবর পাওয়া গেছে।

সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের পূর্ব নন্দন পুর গ্রামের মৃত হাসানুর জামানের পুত্র আনোয়ার হোসেন ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করছে বলে জানা যায়। এতে ঐ এলাকায় গ্রামের ঘরবাড়ি ও ফসলি জমি হুমকির মুখে পরার সম্ভাবনা আছে।
গ্রামের কয়েকজন বলেন, বালু দস্যুরা এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ তাদের বাধা দেয়ার সাহস করে না। এরা ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করছে। ড্রেজিং পদ্ধতিতে এভাবে বালু উত্তোলন করা হলে ভরা বর্ষায় তাদের বসত ভিটা ও ফসলি জমির পরিবেশ গত সমস্যা হতে পারে।

ভুক্তভোগীরা বালু উত্তোলন বন্ধে স্থানীয় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করেও ফল পাচ্ছে না। তারা এ ব্যাপারে প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট সবার কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এই বিষয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন কারি আনোয়ার হোসেনের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, এগারো হাজার ফুট বালু উত্তোলনের কথা থাকলেও আমি এলাকার মনিরের জমি থেকে বালু উত্তোলন করেছি মাত্র ৪ হাজার ফুট। গত ১০ জুলাই সাংবাদিকরা আসার পর থেকে আমি বালু উত্তোলন বন্ধ রেখেছি।

স্হানীয় দক্ষিণ হামছাদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মীর শাহ আলমের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঘটনাটি আমার জানা নেই।

এ বিষয়ে সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো মামুনুর রশীদের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, কেহ যদি অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে থাকে সঠিক তথ্য পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।