সংবাদ শিরোনামঃ
আলিফ মীম হাসপাতালের শেয়ার হোল্ডারদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি জেলা বিএমএ ও স্বাচিপের সভাপতি ডা: জাকির হোসেন উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে এডভোকেট নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত অনিয়মে চাকরিচ্যুত হবেন কর্মকর্তারা, ফেক্ট- উপজেলা পরিষদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ পুরস্কার নিয়ে বির্তক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লক্ষ্মীপুর -১ আসনের ড, আনোয়ার খান এম পির বড় ভাই আখতার খান রায়পুর উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় অধ্যক্ষ মামুনের চেয়ারম্যান হওয়া প্রয়োজন লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক
লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পরিষদের ৭ সদস্যের দুর্নীতির অভিযোগ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পরিষদের ৭ সদস্যের দুর্নীতির অভিযোগ

ভিবি নিউজ-জেলার রায়পুর উপজেলায় এক ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ২২ টি দুর্নীতির অভিযোগ এনেছেন ঐ পরিষদের সাত সদস্য। ‘অভিযুক্ত’ দঃ চর আবাবিল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন ব্যাপারীর বিরুদ্ধে গত ১০ জুন বুধবার পরিষদের ৭ জন সদস্যে একযোগে জেলা প্রশাসক বরাবর নানানরকম দুর্নীতি – অনিয়ম তুলে ধরে লিখিত এক অভিযোগ দেন।

এতে অভিযোগকারী ইউপি সদস্যরা হলেন। ১নং খোরশেদ আলম, ৪নং শাহআলম, ৫নং তাজুল ইসলাম, ৭নং মুসলিম, ৯নং বুলবল, সংরক্ষিত নারী ১-২-৩ নং মরিয়ম ও সংরক্ষিত ৭-৮-৯নং ফিরোজা বেগম।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, বিগত বছরে চেয়ারম্যান নাসিরউদ্দিন আইন কানুন না মেনে নিজ খেয়াল খুশি মত সব কার্যক্রম করে থাকেন। তিনি বিভিন্ন ত্রাণ বিতরণ, ভিজিএফ, ভিজিডি, এলজিএসপি প্রকল্প, ৪০ দিনের কর্মসূচি, হত’দরিদ্রদের বরাদ্দ, কাবিখা প্রকল্প, ওয়ান পার্সেন্টসহ প্রত্যেক খাতে অনিয়ম করেন বলে পরিষদের সদস্যরা জানান।
অভিযোগকারী পরিষদ সদস্য জানান আমরা তার অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে মুখ খুলতে পারি না। কিছু বলতে গেলেই তিনি আমাদের উপর চড়াও হন।
জানা গেছে চেয়ারম্যানের এসব দূর্নীতি-অনিয়ম অর্থ আত্মসাৎ স্বজনপ্রীতিসহ স্বেচ্ছাচারিতায় অতিষ্ঠ পরিষদের অধিকাংশ সদস্য- সদস্যারা এভাবে বিভিন্ন কাজে অনিয়ম ও দূর্নীতির মাধ্যমে তিনি লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

চেয়ারম্যান নাসিউদ্দিনের বিরুদ্ধে যত অভিযোগ:-
২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ৯ নং ওয়ার্ডে ট্রাক্স আদায় করে পঁচিশ লক্ষ (২৫’০০’০০০) টাকা আত্মসাৎ করেন।
২০১৭-১৮ অর্থ বছরে জলিল মোল্লাবাড়ি কমিউনিটি ক্লিনিক সংস্কারের নামে চেয়ারম্যানের যোগসাজসে তার পুত্র ফারুক ভুয়া কমিটির মাধ্যমে তিন লক্ষ (৩’০০’০০০) টাকা আত্মসাৎ করেন।
২০১৮-১৯ অর্থ বছরে বালুধুম বিলের পানি নিঃস্কাশনের জন্য এর খনন কাজে হত দরিদ্র কর্মসূচি প্রকল্পে ৬৯ জন শ্রমিকের অনুকূলে পাঁচ লক্ষ বায়ান্ন হাজার (৫’৫২’০০০) টাকা কারসাজি করেন।
২০১৮-১৯ অর্থ বছরে হত দরিদ্র কর্মসূচির অধীনে উদমারা হইতে চরপক্ষী খাল পুন: খননে বিধি বহির্ভূতভাবে চেয়ারম্যান নিজেই সভাপতি হয়ে ৪৪ শ্রমিকের অনুকূলে তিন লক্ষ বায়ান্ন হাজার (৩’৫২’০০০) টাকা তুলে নেন।
চেয়ারম্যান পুত্র ফয়সলের নামে ন্যায্য মুল্যের চাউলের ডিলারশীপ দিয়ে দুর্নীতি করার অভিযোগে রায়পুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হাতে ধৃত হয়ে ৫০,০০০ টাকা জরিমানা প্রদান।
পরিষদের মাত্র তিনজন সদস্যকে পর্যায়ক্রমে সকল ওয়ার্ডের প্রকল্প কমিটির সভাপতি দেখাইয়া ৯টি ওয়ার্ডের প্রকল্পে কাজ করে টাকা উত্তোলন।
এক ওয়ার্ডের কাজ পছন্দের অন্য ওয়ার্ডের সদস্য দ্বারা করানো।
ঘর বিতরণে ভূমিহীনদের নিকট থেকে কৌশলে ২০/৩০ হাজার টাকা করে আদায় করা।
সকল সদস্যদের নিয়ে মাসিক মিটিং যথা সময়ে না করা।
বিধবা ভাতা, ভিজিএফ, ভিজিডি ও কাবিখা প্রকল্পে নয়-ছয় সহ হরেক রকমের মোট ২২ অভিযোগ আনা হয়েছে।

এসব অভিযোগের ব্যাপারে চেয়ারম্যান নাসিরউদ্দিনের নিকট তার বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা। কিছু লোক তার মান সম্মান নষ্ট করার জন্য উদ্দেশ্য মূলক ষড়যন্ত্র করে চলেছে।