সংবাদ শিরোনামঃ
লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক এমপি ও মন্ত্রী হতে নয় বরং মানুষের পাশে দাঁড়াতে আ.লীগ করি, সুজিত রায় নন্দী বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য, নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী পদক্ষেপ চাই বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য, নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী পদক্ষেপ চাই লক্ষ্মীপুরে বিনা তদবিরে পুলিশে চাকরি পেল ৪৪ নারী-পুরুষ দুস্থ মানবতার সেবায় এগিয়ে আসা “সমিতি ওমান ” কর্তৃক চট্টগ্রামে ইফতার সামগ্রী বিতরণ দলিল যার, জমি তার- নিশ্চিতে আইন পাস লক্ষ্মীপুরে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে পবিত্র কুমার  লক্ষ্মীপুর সংরক্ষিত আসনের মহিলা সাংসদ আশ্রাফুন নেসা পারুল রায়পুরে খেজুর রস চুরির প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধকে মারধরের অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে আলোচিত রীয়া ধর্ষণের বিষয়ে আদালতে মামলা তিনশ’ বছরের ঐতিহাসিক ‘খোয়াসাগর দিঘি’র নাম পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই, জেলা প্রশাসক’ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রিড়া বিষয়ক উপকমিটির তৃতীয় বার সদস্য হলেন লক্ষ্মীপুরের কৃতি সন্তান আবুল বাশার লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ প্রেসক্লাবের নির্বাচন সম্পন্ন সভাপতি-তাহের,সম্পাদক কাউছার
রায়পুরে স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যা, আদালতে স্বামী রাশেদের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি

রায়পুরে স্ত্রীকে গলাটিপে হত্যা, আদালতে স্বামী রাশেদের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি

 

ভিবি নিউজ-প্রায় আড়াই মাস আগে হলেও এর রহস্য উদঘাটন হয়েছে ১৭ জুলাই শুক্রবার। লক্ষ্মীপুরের রায়পুর থানা পুলিশ মৃত্যুর রহস্য উদঘাটন করে হত্যাকারী স্বামীকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে।

থানা পুলিশ জানায়, গত ছয় মাস পূর্বে রায়পুর উপজেলার চর মোহনা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ রায়পুর গ্রামের বাবুর হাট এলাকার কাজী বাড়ীর মো. আলী হায়দারের পুত্র মো. রাশেদের (২৪) সাথে পারিবারিকভাবে একই উপজেলার দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের চরলক্ষ্মী গ্রামের খোকন ছৈয়ালের মেয়ে সীমা আক্তার সুমি (১৯) ‘র বিয়ে হয়।
গত ৪ মে রাত সোয়া একটার দিকে স্বামীর বাড়িতে সুমির রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। স্বামী রাশেদ এটিকে স্বাভাবিক মৃত্যু হিসেবে দাবি করলেও সুমির মাতা ছালেহা বেগম রায়পুর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করেন। পরে সদর হাসাপাতালে তার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করে পারিবারিকভাবে দাফন করা হয়।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল জানান, ১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার সুমির মৃতদেহের ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পুলিশের হাতে আসে। রিপোর্টে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানানো হয়। এ ঘটনার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পরদিন শুক্রবার পুলিশ স্বামী রাশেদকে আটক করে।

জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে রাশেদ তার স্ত্রী সুমিকে গলাটিপে হত্যা করার বিষয়টি স্বীকার করে। পরে ওইদিন তাকে আদালতে হাজির করলে ১৬৪ ধারায় হত্যার স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দেয় স্বামী রাশেদ।

পুলিশ পরিদর্শক আবদুল জলিল বলেন, ‘রাশেদকে জিজ্ঞাসাবাদে এবং আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে সে স্বীকার করেছে- তার নতুন স্ত্রী তাকে বাপের বাড়িতে নিয়ে যেতে বলে। কিন্তু করোনাকালীন লকডাউনের কারণে স্বামী রাশেদের আয় রোজগার না থাকায় শ্বশুর বাড়িতে যেতে রাজি হয়নি।
এ সময় রাশেদ তার স্ত্রী সুমিকে বলেছে- নতুন শ্বশুর বাড়িতে যেতে হলে কিছু কিনে নিতে হবে, এ মূহুর্তে তার হাতে কোন টাকা নেই। এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে রাগ-অভিমান ও কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে স্বামী রাদেশকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় স্ত্রী।
এতে ক্ষিপ্ত হয়ে স্ত্রীকে গলাটিকে হত্যা করে রাশেদ। পরে স্ত্রী’র স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে বলে সে সকলকে জানায়। কিন্তু ঘটনাটি সন্দেহ হলে এ বিষয়ে মামলা করে সুমির মা।’

ওসি আরও বলেন, ময়নাতদন্ত রিপোর্টে আমরা যখন জানতে পেরেছি এটি হত্যা, তখন অত্যন্ত বিচক্ষণতার সহিত আমি এবং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শিপন বড়ুয়া ও এসআই ইয়াছির আরাফাতসহ বিশেষ অভিযান চালিয়ে সুমির স্বামী রাশেদকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে স্ত্রীকে হত্যার লোমহর্ষক ঘটনাটি স্বীকার করায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে ওই মামলায় ঘাতক রাশেদকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়। সেখানে তার স্বীকাররোক্তি মূলক জবানবন্দি গ্রহণ করে জেলা কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেয় বিজ্ঞ আদালতের বিচারক।