সংবাদ শিরোনামঃ
আলিফ মীম হাসপাতালের শেয়ার হোল্ডারদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি জেলা বিএমএ ও স্বাচিপের সভাপতি ডা: জাকির হোসেন উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে এডভোকেট নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত অনিয়মে চাকরিচ্যুত হবেন কর্মকর্তারা, ফেক্ট- উপজেলা পরিষদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ পুরস্কার নিয়ে বির্তক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লক্ষ্মীপুর -১ আসনের ড, আনোয়ার খান এম পির বড় ভাই আখতার খান রায়পুর উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় অধ্যক্ষ মামুনের চেয়ারম্যান হওয়া প্রয়োজন লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক
পাপুলের চার সহযোগীর সম্পদের খোঁজে দুদক

পাপুলের চার সহযোগীর সম্পদের খোঁজে দুদক

ভিবি নিউজ-মানব পাচার চক্রের হোতা হিসেবে কুয়েতে গ্রেপ্তার এমপি কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের চার সহযোগীর সম্পদের খোঁজে মাঠে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্থানীয়ভাবে ওই চারজনকে মোটা অঙ্কের টাকা দিয়ে নিজের পক্ষে নির্বাচনী কাজ করিয়েছেন পাপুল। বৈধ আয়ের বাইরে চারজনের নামে-বেনামে বিপুল পরিমাণ অবৈধ সম্পদ রয়েছে। পাপুল, তার স্ত্রী, মেয়ে ও শ্যালিকার সম্পদ খোঁজার পাশাপাশি এবার ওই চারজনের সম্পদও খোঁজা হচ্ছে। দুদক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

পাপুলের স্থানীয় রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ওই চারজন হলেন লক্ষ্মীপুরের রায়পুর পৌরসভা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক জামশেদ কবীর বাকিবিল্লাহ, লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগ সভাপতি এসএম সালাহউদ্দিন টিপু, লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদ সদস্য শাখাওয়াত হোসেন আরিফ ও লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক নুরুদ্দিন  চৌধুরী নয়ন।

দুদক সূত্র জানায়, তারা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তারা পাপুলের পক্ষে নির্বাচনী কাজ করেছেন। এর বিনিময়ে তাদের অবৈধভাবে মোটা অঙ্কের অর্থ দিয়েছেন পাপুল। বেআইনি আর্থিক সুবিধা নিয়ে তারা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদের মালিক হয়েছেন। এই তথ্য রয়েছে দুদকের কাছে। এ কারণে পাপুলের দুর্নীতির অভিযোগের সঙ্গে তাদেরও অভিযুক্ত হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

জানা গেছে, তাদের নামের জমি, ফ্ল্যাট, প্লটসহ অন্যান্য সম্পদের তথ্য চেয়ে অনুসন্ধান কর্মকর্তা দুদক উপপরিচালক মো. সালাহউদ্দিন স্বাক্ষরিত চিঠি গতকাল সোমবার ঢাকা সাব-রেজিস্ট্রি অফিস, নোয়াখালী সাব রেজিস্ট্রি অফিস, লক্ষ্মীপুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিস, রায়পুর সাব-রেজিস্ট্রি অফিস ও লক্ষ্মীপুর জেলা রেজিস্ট্রারের কাছে পাঠানো হয়েছে।

লক্ষ্মীপুরের একটি সূত্র জানায়, জেলার রায়পুর উপজেলার সাবেক যুবলীগ নেতা মোহাম্মদ আলী খোকন ও আওয়ামী লীগ নেতা হারুনুর রশীদও পাপুলের নির্বাচনী কার্যক্রমে জড়িত ছিলেন। তাদের বিরুদ্ধেও পাপুলের কাছ থেকে অবৈধ আর্থিক সুবিধা নেওয়ার কথা শোনা গেছে।

একটি সূত্র জানায়, জামশেদ কবীরের নামে ঢাকার উত্তরায় দুটি ফ্ল্যাট, আটটি মাইক্রোবাস ও রায়পুরে চারতলা পাকা বাড়ি রয়েছে। নুরুদ্দিন চৌধুরীর নামে ঢাকার ধানমন্ডিতে ফ্ল্যাট রয়েছে। তিনি দেড় কোটি টাকার প্রাডো গাড়িতে চলাফেরা করেন।

সূত্র জানায়, গত মার্চ থেকে পাপুল, তার স্ত্রী সংরক্ষিত আসনের এমপি কাজী সেলিনা ইসলাম, মেয়ে ওয়াফা ইসলাম এবং শ্যালিকা জেসমিন প্রধানের সম্পদ খোঁজা হচ্ছে। ওই সময় তাদের সম্পদের হিসাব চেয়ে সংশ্নিষ্ট সাব-রেজিস্ট্রি অফিসগুলোতে চিঠি দেওয়া হয়েছে। পরে করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন ছুটির কারণে ওইসব তথ্য পাওয়া যায়নি। তাদের সম্পদের হিসাব চেয়ে শিগগির সরকারের সংশ্নিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোতে আবারও চিঠি পাঠাবে দুদক।

লক্ষ্মীপুর-২ আসনের এমপি পাপুলকে সম্প্রতি কুয়েতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দেশটির গোয়েন্দাদের তদন্তে তার বিরুদ্ধে মানব পাচার ও অর্থ পাচারের চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসছে।
(সূত্র সমকাল পত্রিকা)