সংবাদ শিরোনামঃ
আলিফ মীম হাসপাতালের শেয়ার হোল্ডারদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি জেলা বিএমএ ও স্বাচিপের সভাপতি ডা: জাকির হোসেন উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে এডভোকেট নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত অনিয়মে চাকরিচ্যুত হবেন কর্মকর্তারা, ফেক্ট- উপজেলা পরিষদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ পুরস্কার নিয়ে বির্তক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লক্ষ্মীপুর -১ আসনের ড, আনোয়ার খান এম পির বড় ভাই আখতার খান রায়পুর উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় অধ্যক্ষ মামুনের চেয়ারম্যান হওয়া প্রয়োজন লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক
জঙ্গি হামলার আশঙ্কা সারাদেশে পুলিশের সব ইউনিটকে সতর্ক থাকার নির্দেশ

জঙ্গি হামলার আশঙ্কা সারাদেশে পুলিশের সব ইউনিটকে সতর্ক থাকার নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার

দেশে পবিত্র ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে যেকোনো সময় বড় ধরনের জঙ্গি হামলার আশঙ্কা করছে গোয়েন্দারা। বোমা হামলা, হত্যাকাণ্ড, নাশকতা ও ধ্বংসাত্মকমূলক কর্মকাণ্ডের পরিকল্পনা করছে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) আদলে গঠিত নব্য জেএমবি’র সদস্যরা। গোয়েন্দাদের এমন আগাম তথ্য পেয়ে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স থেকে একটি চিঠি দিয়ে দেশের পুলিশের সব ইউনিটকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স থেকে নির্দেশ পাওয়ার পরপরই দেশের সকল বিমানবন্দর, পুলিশের স্থাপনা, দূতাবাস এবং সব উপাসনালয়ের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে পুলিশ।

এছাড়াও ঢাকার ধামরাই এলাকা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের ৫ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গতকাল সোমবার সকালে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা এ তথ্য জানান।

জানা গেছে, জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) দেশে এমন অরাজকতা সৃষ্টির পরিকল্পনা করছে। আন্তর্জাতিক এই জঙ্গি সংগঠনটির আদলে গঠিত নব্য জেএমবি’র সদস্যরা হত্যাকা-, নাশকতা ও ধ্বংসাত্মকমূলক কর্মকাণ্ড করতে পারে গোয়েন্দাদের এমন আশঙ্কায় পুলিশের সব ইউনিটকে সতর্কের পাশাপাশি দেশজুড়ে কড়া নিরাপত্তার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ সদর দফতর। পাশাপাশি পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটসহ জঙ্গিসংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোকে সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি অপারেশনস-১) সাইদ তারিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত একটি চিঠির মাধ্যমে এ ব্যাপারে সব ইউনিটকে বিস্তারিত জানানো হয়েছে। চিঠিতে বিশেষ করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটসহ জঙ্গিসংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোকে সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।চিঠিতে বলা হয়েছে, জাতীয়-বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট ও গোয়েন্দা তথ্য পর্যালোচনায় জানা গেছে, তথাকথিত আইএস আসন্ন ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে কথিত ‘বেঙ্গল উলায়াত’ ঘোষণার উদ্যোগ নিয়েছে। আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক ঘটনা প্রবাহ বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, সাধারণত বড় ধরনের সন্ত্রাসী হামলার মাধ্যমেই ‘বেঙ্গল উলায়াত’ ঘোষণা করা হয়। এই অবস্থায় আইএসের দেশীয় অনুসারী নব্য জেএমবির সদস্যরা হামলা পরিচালনাসহ যেকোনো জঙ্গি হামলা বা বোমা হামলার মাধ্যমে হত্যাকা-সহ নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড করতে পারে। তাই পুলিশের সকল ইউনিটকে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করে যথাযথ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা আবশ্যক। চিঠিতে গোয়েন্দা তথ্যের বরাতে পুলিশ (পুলিশের কোনো টিম, স্থাপনা বা যানবাহন) বিমানবন্দর, ৩ দেশের দূতাবাস ভবন বা দূতাবাস সংশ্লিষ্ট বিশেষ ব্যক্তি অথবা শিয়া-আহমদিয়া উপাসনালয়, মাজার কেন্দ্রিক মসজিদ, চার্চ, প্যাগোডা, মন্দিরগুলোকে টার্গেট করা হতে পারে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। চিঠিতে হামলার সম্ভাব্য দিন-তারিখ উল্লেখ না থাকলেও হামলার সময় সকাল ৬-৭টা অথবা সন্ধ্যা ৭-১০টায় হতে পারে বলে উল্লেখ করা হয়।

হামলাকারীর পরিচয়ের বিষয়ে গোয়েন্দা তথ্যের বরাতে বলা হয়েছে, হামলাকারীর বয়স ১৫-৩০ বছরের মধ্যে হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার চেহারা ক্লিন শেভড দাড়ি থাকতে পারে, গোঁফহীন হতে পারে। তার পরনে শার্ট/টিশার্ট, প্যান্ট, ক্যাপ মাস্ক, কেডস এবং পেছনে ব্যাকপ্যাক থাকতে পারে। হামলার সময় হামলাকারী অস্ত্র ব্যবহারের বিষয়টিও উল্লেখ করা হয়েছে।

চিঠিতে সুপারিশ হিসেবে উগ্রপন্থী বা তাদের সংগঠনের ওপর নজরদারি বৃদ্ধি, পুলিশের সবাইকে ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বজায় রাখা, পুলিশের গাড়ি-স্থাপনা খালি বা পরিত্যক্তভাবে ফেলে না রাখা, পুলিশের ভবনগুলোতে প্রবেশের সময় নিরাপত্তা ও পরিচয় নিশ্চিত করা, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর নজরদারি বৃদ্ধি করা, চেকপোস্টে তল্লাশি বাড়ানো, সন্দেহ হলে ব্যাগ-দেহ তল্লাশি করা, সন্দেহজনক এলাকায় বস্নক রেইড করতে সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ সদর দফতর।

পুলিশ সদর দফতর থেকে নির্দেশনা পাওয়ার পর পরই অভিজাত এলাকা গুলশান ও কূটনৈতিক পাড়াসহ রাজধানীর বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ও স্থাপনায় নিরাপত্তা জোরদার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। বিশেষ করে বনানী, গুলশান, বাড্ডা, মতিঝিল, সচিবালয়, সংসদ ভবন এলাকা, বাংলাদেশ টেলিভিশন ভবন, উত্তরা ও মহাখালীসহ আশপাশের এলাকায় গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহনে নজরদারি রাখা হচ্ছে। বাড়ানো হয়েছে র‌্যাব ও পুলিশের বিশেষ টহল। জঙ্গি হামলার আশঙ্কায় বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তার জন্য বিশেষ নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। দূতাবাস ও গির্জার আশপাশের এলাকায় প্রতিনিয়ত টহল দিচ্ছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

অপরদিকে, ঢাকার ধামরাই এলাকা থেকে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের ৫ সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। র‌্যাব-৪ এর একটি দল গত রোববার দিবাগত রাত ১১টা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করে ধামরাই থানাধীন ধুলিভিটা বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতাকৃতরা হলেন- মিজানুর রহমান পলাশ (৩৫), দুরুল হুদা (৪৪), আব্দুর রশিদ (২১), মো. রাসেল (৩৭) এবং আব্দুল হাই (৪০)। সবার বাড়িই চাঁপাইনবাবগঞ্জে।

গতকাল সোমবার দুপুরে র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর) মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম সজল জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের উগ্রবাদী সম্পর্কিত বই, লিফলেট, ডিজিটাল কনটেন্টসহ মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

এদিকে পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা বলেন, দেশে জঙ্গিবাদ সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আছে। তবুও দেশ ও জনগণের সর্বোচ্চ সুরক্ষা এবং কল্যাণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নূ্যনতম কোনো আশঙ্কার সুযোগ আমরা রাখতে চাই না। নিয়মিত কার্যক্রমের পাশাপাশি এবং এর অংশ হিসেবে আমরা সকল উৎসব এবং জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠানের আগে সংশ্লিষ্ট সকল ইউনিটকে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে নির্দেশনা দিয়ে থাকি। এবারও, তেমনটি করা হয়েছে।