সংবাদ শিরোনামঃ
উপজেলা নির্বাচনে প্রচারণায় অংশ না নিতে এমপি আনোয়ার খাঁনকে চিঠি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এডভোকেট রহমত উল্যাহ বিপ্লবের কিছু কথা লক্ষ্মীপুরের কৃতিসন্তান আনোয়ারুল হক ছলেমা খাতুন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামাল ফার্মারের  জন্মদিনে তিনি সকলের আশির্বাদ /দোয়া প্রার্থী লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ হামছাদি ইউপি নির্বাচনে মীর শাহআলম চেয়ারম্যান নির্বাচিত লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে এডভোকেট নজরুল ইসলাম চেয়ারম্যান নির্বাচিত অনিয়মে চাকরিচ্যুত হবেন কর্মকর্তারা, ফেক্ট- উপজেলা পরিষদ নির্বাচন লক্ষ্মীপুরে শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ পুরস্কার নিয়ে বির্তক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন লক্ষ্মীপুর -১ আসনের ড, আনোয়ার খান এম পির বড় ভাই আখতার খান রায়পুর উপজেলার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে পুনরায় অধ্যক্ষ মামুনের চেয়ারম্যান হওয়া প্রয়োজন লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক এমপি ও মন্ত্রী হতে নয় বরং মানুষের পাশে দাঁড়াতে আ.লীগ করি, সুজিত রায় নন্দী
গ্রাম আদালতে সালিশ নিষ্পত্তি করতে হবে ১৫ দিনের মধ্যে

গ্রাম আদালতে সালিশ নিষ্পত্তি করতে হবে ১৫ দিনের মধ্যে

স্টাফ রিপোর্টার : গ্রাম আদালতে সালিশ নিষ্পত্তির সময়সীমা ১ মাস থেকে কমিয়ে ১৫ দিন নির্ধারণ করে ‘গ্রাম আদালত (সংশোধন) আইন, ২০২২’ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

আইনটিকে একটু রিভিশন করা হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ২০১৩ সালে যখন আইনটা করা হয় তখন নিষ্পত্তির সীমা ছিল ৩০ দিন। এখন এটা কমিয়ে নিয়ে এসে ১৫ দিন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, নাবালকের পরিবর্তে শিশু কথাটি লেখা হয়েছে। আগে শুধু নাবালক ছিল, এখন বলা হচ্ছে শিশু। শিশু আইনে শিশুর যে ডেফিনেশন আছে, সে অনুযায়ী শিশুকে ডেসক্রাইব করতে হবে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ২০১৩ সালে একটা বিষয় ছিল যে, ক্ষতিপূরণ আদায়ের ক্ষেত্রে তারা ৭৫ হাজার টাকা পর্যন্ত আদায় করতে পারবে। এখন এটা ৩ লাখ টাকা করে দেয়া হয়েছে।

গ্রাম আদালতে ৫ জন সদস্য থাকবেন জানিয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, একজন চেয়ারম্যান, বাকি হলো দুই পক্ষ থেকে দুই জন করে। মহিলা যদি থাকে, মহিলা একজন থাকবেন। বিশেষ করে যদি নারী অভিযোগকারী থাকে।