সংবাদ শিরোনামঃ
লক্ষ্মীপুর জেলায় ৮ম: বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলে মোঃ এমদাদুল হক দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক এমপি ও মন্ত্রী হতে নয় বরং মানুষের পাশে দাঁড়াতে আ.লীগ করি, সুজিত রায় নন্দী বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য, নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী পদক্ষেপ চাই বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য, নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী পদক্ষেপ চাই লক্ষ্মীপুরে বিনা তদবিরে পুলিশে চাকরি পেল ৪৪ নারী-পুরুষ দুস্থ মানবতার সেবায় এগিয়ে আসা “সমিতি ওমান ” কর্তৃক চট্টগ্রামে ইফতার সামগ্রী বিতরণ দলিল যার, জমি তার- নিশ্চিতে আইন পাস লক্ষ্মীপুরে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে পবিত্র কুমার  লক্ষ্মীপুর সংরক্ষিত আসনের মহিলা সাংসদ আশ্রাফুন নেসা পারুল রায়পুরে খেজুর রস চুরির প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধকে মারধরের অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে আলোচিত রীয়া ধর্ষণের বিষয়ে আদালতে মামলা
আন্তঃদেশীয় অস্ত্র কারবারি চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার : ডিবি

আন্তঃদেশীয় অস্ত্র কারবারি চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার : ডিবি

স্টাফ রিপোর্টার

রাজধানীর দারুস সালাম এলাকা থেকে গত বুধবার রাতে আন্তঃদেশীয় অস্ত্র ব্যবসায়ী চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেফতারের কথা জানিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। গ্রেফতার ব্যক্তিদের কাছ থেকে ৮টি বিদেশি পিস্তল, ৮টি গুলি, ১৬টি ম্যাগাজিন ও ১টি প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানায় ডিবি।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিবির প্রধান এ কে এম হাফিজ আক্তার। গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলো আকুল হোসেন, ইলিয়াস হোসেন, আবুল আজিম, ফারুক হোসেন ও ফজলুর রহমান। ডিবি বলছে, ঢাকার ভাষানটেকে একজন ঠিকাদারকে গুলি করার ঘটনায় ব্যবহৃত অস্ত্র ও সমপ্রতি উদ্ধার হওয়া কয়েকটি অস্ত্রের উৎস অনুসন্ধানে নেমে তারা এ চক্রের সন্ধান পান। ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার হাফিজ আক্তার বলেন, ভারতের তৈরি এসব অস্ত্র সীমান্তবর্তী জেলা যশোরের বেনাপোল হয়ে দেশে প্রবেশ করছে। পরে তা খুলনা, বাগেরহাট, ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকার সন্ত্রাসীদের হাতে চলে যাচ্ছে। হাফিজ আক্তার বলেন, গ্রেফতার আকুল হোসেন এই চক্রের প্রধান। তিনি ২০১৪ সাল থেকে অস্ত্র ব্যবসা ও স্বর্ণ চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত। এ ছাড়া এ চক্র তক্ষক বেচাকেনা, সীমান্ত খুঁটি, সাপের বিষ, প্রত্নতাত্তি্বক মূর্তি, ইয়াবা, আইস ইত্যাদির কারবার করে আসছিল। আকুল হোসেনের বিরুদ্ধে যশোরের বিভিন্ন থানায় আটটি মামলা রয়েছে। গ্রেফতার অন্য ব্যক্তিরা যশোর জেলার বেনাপোল ও শার্শার বাসিন্দা। ডিবির পক্ষ থেকে বলা হয়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আকুল ২০০টি অস্ত্র বিক্রির কথা স্বীকার করেছে। তারা প্রতিটি অস্ত্র ২৮৫০ হাজার টাকায় কিনত। বিক্রি করতেন ৮০৯০ হাজার টাকায়।এক প্রশ্নের জবাবে হাফিজ আক্তার বলেন, অস্ত্রগুলো চুরি, ছিনতাই, ভূমি দখল, আধিপত্য বিস্তারের মতো অপরাধ কর্মে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল। এ ছাড়া আগামী নির্বাচনকে টার্গেট করে কোনো গোষ্ঠী এসব অস্ত্র সংগ্রহ করছে কিনা, তা তারা তদন্ত করে দেখছেন। অভিযানের তদারক কর্মকর্তা ডিবির গুলশান বিভাগের উপকমিশনার মশিউর রহমান বলেন, আন্তর্জাতিক অস্ত্র কারবারিরা অস্ত্র ও গুলি সঙ্গে নিয়ে তা বিক্রির উদ্দেশ্যে প্রাইভেট কারে গাবতলী হয়ে ঢাকায় ঢুকছে বলে তারা গোপন তথ্য পান। এ তথ্যের ভিত্তিতেই তারা অভিযান চালান। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দারুস সালাম থানায় অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে বলে জানায় ডিবি। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করবে ডিবি।