সংবাদ শিরোনামঃ
দালাল বাজার ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে কাকে ভোট দিবেন? লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৪নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী কাজল খাঁনের গণজোয়ার লক্ষ্মীপুরের উপশহর দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী পাঁচজন,কে হবেন চেয়ারম্যান ? বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ওমান সুর শাখার সহ-সাধারন সম্পাদক কামাল হোসেনের ঈদের শুভেচ্ছা, ঈদ মোবারক এমপি ও মন্ত্রী হতে নয় বরং মানুষের পাশে দাঁড়াতে আ.লীগ করি, সুজিত রায় নন্দী বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য, নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী পদক্ষেপ চাই বাড়ছে ভুয়া সাংবাদিকদের দৌরাত্ম্য, নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী পদক্ষেপ চাই লক্ষ্মীপুরে বিনা তদবিরে পুলিশে চাকরি পেল ৪৪ নারী-পুরুষ দুস্থ মানবতার সেবায় এগিয়ে আসা “সমিতি ওমান ” কর্তৃক চট্টগ্রামে ইফতার সামগ্রী বিতরণ দলিল যার, জমি তার- নিশ্চিতে আইন পাস লক্ষ্মীপুরে প্রতারণার ফাঁদ পেতেছে পবিত্র কুমার  লক্ষ্মীপুর সংরক্ষিত আসনের মহিলা সাংসদ আশ্রাফুন নেসা পারুল রায়পুরে খেজুর রস চুরির প্রতিবাদ করায় বৃদ্ধকে মারধরের অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে আলোচিত রীয়া ধর্ষণের বিষয়ে আদালতে মামলা তিনশ’ বছরের ঐতিহাসিক ‘খোয়াসাগর দিঘি’র নাম পরিবর্তনের কোন সুযোগ নেই, জেলা প্রশাসক’
কমলনগর ইউএনও’র সরকারি মোবাইল ফোন ক্লোন করে অর্থ দাবী ?

কমলনগর ইউএনও’র সরকারি মোবাইল ফোন ক্লোন করে অর্থ দাবী ?

 

মিজানুর শামীমঃ লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অফিসিয়াল মোবাইল ফোন ০১৭৮৮৫৭৭৭১৪ নম্বরটি প্রতারক চক্র ক্লোন করে বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের নিকট হতে অর্থ দাবি করার খবর পাওয়া গেছে। বিষয়টি নিয়ে Uno Kamalnagar এর অফিসিয়াল ফেসবুক আইডি থেকে ৭ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দুপুর একটার দিকে সর্তকতা অবলম্বনের জন্য একটি পোস্ট দেয়া হয় যা হুবহু তুলে ধরা হলো
***উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কমলনগর, লক্ষ্মীপুর এর অফিসিয়াল মোবাইল নম্বর (০১৭৮৮৫৭৭৭১৪) টি প্রতারক চক্র ক্লোন করে বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট হতে অর্থ দাবি করছে বলে কয়েকজন ভুক্তভোগী জানিয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কমলনগর, লক্ষ্মীপুর মহোদয়ের অফিসিয়াল, ব্যক্তিগত মোবাইল বা টেলিফোন নম্বর ব্যবহার করে কেউ কোন ধরনের অর্থ দাবি করলে তা প্রদান থেকে বিরত থাকার জন্য এবং প্রতারক চক্রের সন্ধান পাওয়া গেলে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করার জন্য সকলকে অনুরোধ করা হলো।***
ভুক্তভোগী চর কালকিনি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাস্টার মো. সাইফুল্লাহ মুঠোফোন জানান, এক মাস পূর্বে ইউএনও স্যারের সরকারি মোবাইল ফোন নাম্বার দিয়ে আমাকে ফোন করে বলে আমি বাড়ীতে যাবো একটি বিকাশ নাম্বার দিতেছি পারলে কিছু টাকা পাঠাবেন, আজও একই নাম্বার দিয়ে ফোন করলে আমি অসুস্থ থাকাতে কলটি ধরতে পারিনি, পরে ইউএনও স্যারকে ফোন কল ব্যাক করে জানলাম তিনি আমাকে ফোন করেননি।
আরেক ভুক্তভোগী চর মার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউসুফ আলী মিয়া জানান, আজ (৭ অক্টোবর) বেলা এগারোটায় ইউএনও স্যারের সরকারি মোবাইল ফোন নাম্বার দিয়ে আমাকে ফোন করে হাই হ্যালো করতে থাকলে কন্ঠ অপরিচিত মনে হওয়ায় সংযোগটি কেটে দিয়ে ঘটনাটি ইউএনও স্যারকে জানাই। তিনি আরও জানান, দুই বছর পূর্বেও একইভাবে ইউএনও স্যারের ফোন নাম্বার দিয়ে আমাকে অপরিচিত লোক ফোন করেছিলো।
হাজিরহাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নিজামুদ্দিনকেও কমলনগর ইউএনও’র সরকারি মোবাইল ফোন নাম্বার দিয়ে ছয়মাস পূর্বে ফোন করে অর্থ দাবি করা হয়েছিলো বলে তিনিও এ প্রতিবেদককে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এ ব্যাপারে কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামানের নিকট মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি এ প্রতিবেদককে বলেন, উপজেলার চর কালকিনি, চর মার্টিন ও হাজিরহাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সাহেবদের থেকে জানার পরে বিষয়টি দ্রুতই কমলনগর থানার অফিসার ইনচার্জকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে এবং লিখিতভাবে অভিযোগ জানানোর প্রক্রিয়া চলছে।